একটি গোষ্ঠী সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র করছে: প্রধানমন্ত্রী

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

কাকলি সুলতানা স্টাফ রিপোর্টার:- একটি গোষ্ঠী সরকার উৎখাতের ষড়যন্ত্র করছে: প্রধানমন্ত্রী।

শনিবার বিকেলে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে এসব কথা বলেন শেখ হাসিনা।প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, গ্রামীণ অর্থনীতি শক্তিশালী হয়েছে, প্রত্যন্ত অঞ্চলেও উন্নত হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা।

এবারের ঈদে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক মানুষ গ্রামে গিয়ে ঈদ করেছে, এতে অর্থনীতির প্রবাহ বেড়েছে।

এরপরও একটি গোষ্ঠী আওয়ামী লীগ সরকারকে উৎখাত করার ষড়যন্ত্র করছে।তিনি আরও বলেন, জিয়াউর রহমান নির্বাচনে প্রহসন ও ভোট কারচুপির কালচার শুরু করে। আওয়ামী লীগ কখনোই ভোটে পিছিয়ে ছিলনা।

নানা ষড়যন্ত্র করে ভোটে পিছিয়ে রাখা হয়েছে। নানা ষড়যন্ত্রের মধ্যেও আমরা এগিয়েছি।প্রধানমন্ত্রী বলেন, অনেকেই বিদেশের দিকে তাকিয়ে আছে। বিদেশীরা যেন তাদেরকে ক্ষমতায় বসাবে। কিন্তু আজকের বাংলাদেশ সেই বাস্তবতায় নেই। জিয়া-এরশাদ-খালেদা জিয়ার আমলে ক্ষমতা ছিল ক্যান্টনমেন্টে।

পাকিস্তানি স্টাইলে মিলিটারি ডিকটেটরশিপ চালু করেছিল। তারা সবাই মানুষ হত্যা করেছে।শেখ হাসিনা আরও বলেন, বিএনপিকে মানুষ ভোট দিবে কেন? এদের শীর্ষ নেতৃত্বের একজন এতিমের টাকা চুরি করে কারাদণ্ড ভোগ করছেন, অন্যজন দুর্নীতির মামলায় বিদেশে পালিয়ে আছেন।

দেশবাসী আগামী নির্বাচনেও আওয়ামী লীগকেই রাষ্ট্র পরিচালনার দায়িত্বে দিব বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন শেখ হাসিনা।সরকার প্রধান বলেন, বাংলাদেশ কারো কাছে মাথা নিচু করে চলবে না।

নিজস্ব অর্থায়নে দেশের উন্নয়ন অগ্রগতির ধারা অব্যাহত রাখবে। এসময় তিনি স্মরণ করিয়ে দেন, দেশের বর্তমান উন্নয়ন কর্মসূচির ৯০ শতাংশের বেশি নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়িত হচ্ছে।

দলের বৈঠকে আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচিগুলো জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়ার পাশাপাশি সারাদেশে আওয়ামী লীগকে আরো শক্তিশালী করতে দলের নেতাদের নির্দেশ দেন আওয়ামী লীগ সভাপতি। এসময় তিনি নির্ধারিত সময়েই আওয়ামী লীগের সম্মেলন হবে বলে আশ্বাস দেন।