আগামী তিন দিনে যেসব বিভাগে বৃষ্টির পূর্বাভাস

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

আগামী তিন দিন দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি থেকে ঘনকুয়াশা পড়তে পারে। কুয়াশার কারণে বিমান চলাচল, অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন এবং সড়ক যোগাযোগ সাময়িকভাবে বিঘ্নিত হতে পারে। তবে কয়েকটি বিভাগে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। বৃষ্টির কারণে ঘনকুয়াশা কমে গিয়ে বাড়তে পারে শীত।

আবহাওয়ার পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, আজ মঙ্গলবার রাত থেকে সকাল পর্যন্ত সারা দেশে মাঝারি থেকে ঘনকুয়াশা পড়তে পারে। এছাড়া কোথাও কোথাও মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে।

অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আকাশসহ সারা দেশের আবহাওয়া শুষ্ক থাকতে পারে। এছাড়া রাতের এবং দিনের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়ার সিনপটিক অবস্থা সম্পর্কে বলা হয়েছে, উপমহাদেশীয় উচ্চচাপ বলয়ের বাড়তি অংশ পশ্চিমবঙ্গ ও এর কাছাকাছি এলাকায় অবস্থান করছে। মৌসুমের স্বাভাবিক লঘুচাপ দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। যার বাড়তি অংশ উত্তর বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত রয়েছে।

বুধবার (১৭ জানুয়ারি) খুলনা বিভাগের দু এক জায়গায় মাঝারি থেকে ঘনকুয়াশা পড়তে পারে। সেইসঙ্গে খুলনা বিভাগের দু’এক জায়গায় হালকা থেকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি পড়তে পারে। বৃষ্টির প্রভাবে কেটে যাবে কুয়াশা, কম যাবে তাপমাত্রা।

বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) রাজশাহী, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম বিভাগে হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে।

এছাড়া রাতের তাপমাত্রা সামান্য বাড়তে পারে। কমতে পারে দিনের তাপমাত্রাও।

অন্যদিকে, বর্ধিত পাঁচ দিনে রাতের তাপমাত্রা কমতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস।

এদিকে, তীব্র শীতে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে শ্রমজীবী মানুষের। একই সঙ্গে ঠান্ডাজনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। বিশেষ করে শিশু ও বয়স্ক ব্যক্তিরা শ্বাসকষ্ট, নিউমোনিয়াসহ বিভিন্ন ধরনের রোগে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন। এছাড়াও ঘন কুয়াশায় ফসলের ক্ষতি এবং চলাচলে সমস্যা হচ্ছে।