দুই দিন পর বিজিবি সদস্যের লাশ ফেরত বিএসএফ’র

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ’র গুলিতে নিহত বিজিবি সদস্য রইস উদ্দিনের লাশ দুই দিন পর হস্তান্তর করা হয়েছে।বুধবার (২৪ জানুয়ারি) দুপুরে যশোরের শার্শা উপজেলার শিকারপুর ও ভারতের গাঙ্গুলিয়া সীমান্তে লাশটি হস্তান্তর করা হয়।

যশোর ৪৯-বিজিবির কমান্ডিং অফিসার (সিও) লে. কর্নেল আহমেদ হাসান জামিল ও সহকারি পরিচালক মাসুদ রানা লাশ গ্রহণ করেন। পরে লাশ ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে লাশ যশোর বিজিবি ব্যাটালিয়নে নিয়ে যাওয়া হবে। পরে সেখান থেকে পরিবারের কাছে হস্তান্তর জন্য চাঁপাইনবাবগঞ্জ পাঠানো হবে।

নিহত বিজিবি সদস্য রইস উদ্দিনের বাবার নাম কামরুজ্জামান। তার বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার মনাকষা ইউনিয়নের শ্যামপুর সাহাপাড়া গ্রামে।

বিজিবি জানায়, যশোরের বেনাপোল পোর্ট থানার ধান্যখোলা সীমান্তে গত সোমবার (২২ জানুয়ারি) ভোরে চোরাকারবারিরা ভারত থেকে চোরাই পথে গরু আনছিল। বিষয়টি টের পেয়ে বিজিবি সদস্যরা চোরকারবারিদের ধাওয়া করলে তারা ভারত সীমান্তে ঢুকে পড়ে। এ সময় বিজিবি সদস্য রইস উদ্দীন ঘনকুয়াশার কারনে দলবিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। প্রথমে তাকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। পরে জানা যায় সে বিএসএফের গুলিতে আহত হয়ে ভারতের বনগাঁ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ ঘটনায় কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক করে বিজিবি-বিএসএফ। এসময় বিএসএফের তরফ থেকে জানানো হয় চিকিৎসাধীন অবস্থায় উক্ত বিজিবি সদস্য মৃত্যুবরণ করেছেন।

লাশ হস্তান্তরের বিষয়ে লে. কর্ণেল আহমেদ হাসান জামিল বলেন, বিএসএফ’র গুলিতে নিহত বিজিবি সদস্য রইস উদ্দিনের লাশ বিএসএফের কাছ থেকে গ্রহণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানানোর পাশাপাশি কূটনৈতিকভাবে তীব্র প্রতিবাদলিপি পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।