স্ত্রীর মর্যাদা পেতে যুবলীগ নেতার বাড়িতে নারীর অনশন

Share on facebook
Facebook
Share on twitter
Twitter
Share on linkedin
LinkedIn
Share on whatsapp
WhatsApp
Share on email
Email

জামালপুর জেলা প্রতিনিধি:- জামালপুরের মেলান্দহে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে মজিবুল হাসান শামীম নামে এক যুবলীগ নেতার বাড়িতে অনশন করেছেন এক নারী।

মঙ্গলবার (১৩ জুন) দুপুরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে ওই যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে জামালপুর সদর থানায় ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন তিনি।

এর আগে, সোমবার মেলান্দহের হাজরাবাড়ী পৌর যুবলীগের সহ-সভাপতি শামীম হাজারীর ঢালুয়াবাড়ী গ্রামের বাড়িতে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে অনশন শুরু করেন ওই নারী।এ সময় তিনি অভিযোগ করে বলেন, প্রায় এক বছর আগে শামীম হাজারীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে তার।

পরে শামীম হাজারী মিথ্যা প্রলোভন দেখিয়ে তাকে ঢাকায় নিয়ে মসজিদের ইমামের মাধ্যমে বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে জামারপুর শহরের নতুন হাইস্কুল মোড়ে তাকে একটি বাসা ভাড়া নিয়ে দেন শামীম। ওই বাসায় নিয়মিত যাতায়াত করতেন শামীম। সম্প্রতি বিয়ের রেজিস্ট্রি কাবিনের জন্য তিনি চাপ প্রয়োগ করলে যোগাযোগ বন্ধ করে দেয় শামীম। পরে শামীমের বাড়িতে গিয়ে স্ত্রীর মর্যাদার দাবিতে অনশন শুরু করেন তিনি।

ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে শামীম ও ওই নারীর একাধিক ছবি ভাইরাল হয়। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে যুবলীগ নেতা শামীমের বিরুদ্ধে জামালপুর সদর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন ওই নারী।এ বিষয়ে অভিযুক্ত যুবলীগ নেতা মজিবুল হাসান শামীমের মোবাইল ফোনে একাধিকবার ফোন করা হলেও তিনি তা রিসিভ করেননি।হাজরাবাড়ী পৌর যুবলীগের সভাপতি বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আমি বিষয়টি জেনেছি।

যে কেউ দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।জামালপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কাজী শাহ নেওয়াজ জানান, মামলা দায়েরের পর ধর্ষণের শিকার ওই নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করানো হয়েছে। আসামিকে গ্রেফতারে দ্রুত অভিযান চলছে।